Breaking News

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় একদিনে ২৪৫ জনের শরীরে মিলল করোনা ভাইরাস

শিব শঙ্কর চ্যাটার্জি, নিউজ অনলাইন:  ভারত  যতই কোভিড-১৯ টিকার আবিষ্কারের দিকে এগোচ্ছে  করোনা যেন  ততই তার আসল খেল দেখাতে শুরু করেছে। আনলক-৩ পর্বে  আজ দক্ষিণ দিনাজপুরে রেকর্ড পরিমান ২৫০ থেকে  মাত্র ৫ কম  ২৪৫ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণের হদিস মিলেছে।এরফলে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে  দাঁড়িয়েছে ২৭৮৪। যদিও এদিন করোনা জয় করে বাড়ি ফিরেছেন দক্ষিণ দিনাজপুরের ৯১ জন। জেলায় মোট ১৭৯৯ জন সুস্থ হয়েছেন।তবে এর পাশাপাশি করোনায় জেলায় বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে। এরমধ্যে আবার এক করোনা রোগী সেফ হোম থেকে ঝাপ দিয়ে আত্মহত্যার ঘটনাও ঘটিয়েছে।সব মিলিয়ে করোনা তার ঝড়ো ব্যাটিং চালিয়ে জেলায় তার স্কোর বোর্ড অব্যাহত রেখেছে। যা যথেষ্ট উদ্বেগের।  

এদিন মালদা থেকে ২১৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।
স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রের খবর, ১৫, ১৬, ১৭ অগাস্ট আক্রান্তদের সোয়াব সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য মালদা মেডিকেল কলেজের ভিআরডিএলে পাঠানো হয়েছিল। সেখান থেকে ২১৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানা গিয়েছে। তবে বাকি ৩০ জন পজিটিভ হয়েছেন অ্য়ান্টিজেন ও ট্রুনাট মেশিনে টেস্টের মাধ্যমে।সংক্রামিতদের অধিকাংশরই ট্রাভেল হিস্ট্রি নেই। তবে অনেকেরই উপসর্গ রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। 

এদিন মালদা থেকে ২১৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তারমধ্যে বালুরঘাট শহরের ২১, বালুরঘাট গ্রামীণ এলাকার ২৫, কুশুমণ্ডি ব্লকের ১৫, কুমারগঞ্জ ব্লকের ৭৯ (এরমধ্যে ২৬ জন বিএসএফ কর্মী), হিলি ব্লকের ১০, বংশীহারি ব্লকের ১০, তপন ব্লকের ২২, গঙ্গারামপুর শহরের ১, গঙ্গারামপুর ব্লকের ৫, বুনিয়াদপুর শহরের ৬, হরিরামপুরের ২১ জন রয়েছেন বলে সূত্রের খবর।নতুন করে সংক্রামিতদের সেফ হাউজে এনে চিকিৎসা শুরু করা হয়েছে।

যদিও জেলা স্বাস্থ্য দফতরের তরফে এখনও কোন মন্তব্য এই নিয়ে করা হয়নি।

No comments