Breaking News

বিভিন্ন দাবি নিয়ে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজবাটি ক্যাম্পাসে ছাত্র ছাত্রীদের বিক্ষোভ

কল্যাণ দত্ত, নিউজ অনলাইন: সিলেবাস শেষ করে পরীক্ষা গ্রহণ এবং বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় ও বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় অধিনস্থ কলেজ গুলির এই সেমিস্টারের সমস্ত রকম ফিজ মুকুবের দাবী বর্ধমান রাজ বাটির সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি।       
আজকের দাবী :
১)বিশ্ববিদ্যালয় খোলার ১ মাস পর স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরের ফাইনাল সেমিস্টারের পরীক্ষা গ্রহণের অপরিকল্পিত ও অবিবেচিত সিদ্ধান্তকে প্রত্যাহার করে, বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত সিলেবাস শেষ করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে শিক্ষক ও ছাত্রদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে পরীক্ষার দিন নির্ধারণ করতে হবে। 
২)স্নাতক পুরাতন  তৃতীয় বর্ষ ও ফাইনাল সেমিস্টারের ছাত্রদের যেন কোন শিক্ষা বর্ষ বাড়তি  নষ্ট না হয় বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষকে সেটিকেও মাথায় রেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে।  
৩)বহু কলেজে এবং বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর স্তরের বহু বিভাগেও এখনও পর্যন্ত পর্যাপ্তভাবে অনলাইন ক্লাস ছাত্রছাত্রীদের কাছে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়নি ,  এমনকী পর্যাপ্ত পরিমাণ  অনলাইন ক্লাস গ্রহণও করা হচ্ছে না সর্বত্র । বহু ক্ষেত্রেই ছাত্রছাত্রীদের কাছে অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহন করার জন্য পর্যাপ্ত ইন্টারনেট পরিষেবা ও প্রযুক্তির ব্যবস্থা নেই , ফলে তারা এই অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারছে না। তাই অনলাইন ক্লাসকে একমাত্র সিলেবাস শেষ করার পন্থা হিসেবে আবশ্যক না করে  লকডাউন পরিস্থিতির পরে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পুনরায় চালু হলে সঠিক শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে বাড়তি ক্লাস গ্রহন এবং যথোপযুক্ত স্টাডি নোট ও কনটেন্ট প্রদান করে সিলেবাস শেষ করে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিতে হবে । দরকার পড়লে সিলেবাস পুনর্বিন্যাস এর বিষয়েও ভাবনাচিন্তা করা যেতে পারে । 
৪) অতিদ্রুত পূর্বতন সেমিস্টারের ফলাফল ও পুরাতন শিক্ষাবর্ষের ছাত্রছাত্রীদের প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের ফলাফল অতিদ্রুত  প্রকাশ করতে হবে, পূর্বতন সেমিস্টার গুলির ফলাফল প্রকাশ করে তারপর পরবর্তী সেমিস্টার এর পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে।
৫) এই করোনা মহামারী, লকডাউন  পরিস্থিতিতে সকল ছাত্রছাত্রীর শারীরিক সুরক্ষা ও পরীক্ষা গ্রহণ কেন্দ্রে উপস্থিত থাকার জন্য যাতায়াত, যানবাহন ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে।
একই সঙ্গে আরো একটি বিষয়  বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষের কাছে দাবি আকারে  রাখা হয়েছে, সেটা  এই লকডাউন পরিস্থিতিতে বর্ধমান  বিশ্ববিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয়  অধিনস্থ কলেজ গুলির ছাত্রছাত্রীদের  এই সেমিস্টারের জন্য হোস্টেল, সেমিস্টার ফি সহ যাবতীয় ফি মকুব করতে হবে।

No comments