Breaking News

খাবার নিয়ে শহরের বিভিন্ন রাস্তা ঘুড়ে ঘুড়ে পথের সারমেয়দের মুখে আহার দিচ্ছেন স্থানীয় এক মিষ্টান্ন ব্যবসায়ী

নিউজ অনলাইন, বালুরঘাট:  দেশজুড়ে করোনার ত্রাস, চলছে লকডাউন ও বিপন্নতার মুখোমুখি মানুষের জীবন সব থাকা সত্ত্বেও মানুষ যখন আজ চরম এক পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে, ঠিক এই পরিস্থিতিতে রাস্তার  কুকুর দের অবস্থা শোচনীয়। বন্ধ রয়েছে সমস্ত খাবারের দোকান ছোটখাটো হোটেল ফলে খাবার তাদের মিলছে না।কিন্তু বেলা বাড়ার সাথে সাথে তাও ফাকা হয়ে যায়। এযেন অঘোষিত এক কার্ফু। একদিকে চৈত্রের চাদি ফাটা রোদ। এই চরম পরিস্থিতির মধ্যে অনেককেই দেখা গেছে এগিয়ে আসতে তাদের পাশে। এমনি এক পশুপ্রেমী মিষ্টান্ন ব্যবসায়ী তিনি রাস্তায় রাস্তায় খাবার নিয়ে ঘুরে ঘুরে বেড়াচ্ছে পথের সারমেয়দের মুখে খাবার তুলে দিতে। তিনি প্রতিদিন বাড়ি থেকে রান্না করে নিয়ে এসে পথে সারমেয়দের খোঁজে ছুটে চলেন। যেখানেই যার সাথে দেখা সেখানেই দাঁড়িয়ে পড়েন। অনেকে সারমেয় তাঁকে দেখে পালিয়ে গেলেও খিদের জ্বালায় কতক্ষন আর দূরে থাকে। খাবার বার করতে করতে পাশে এসে লেজ নারাতে থাকে। তা দেখেই নাকি মনে খুব আনন্দ লাগে। 
এদিন ওই মিষ্টান্ন ব্যবসায়ী বলেন, লকডাউনের জেরে দোকান খামার বন্ধ। সারাদিন বাড়িতে ভাল লাগে না। তবুও আমরা বাড়িতে থেকে দু-বেলা হলেও কিছু না কিছু খাচ্ছি। সত্যি কথা বলতে সারা দিন যখন দোকান করতাম কত রঙের কুকুর সেখানে আসতে তাদের খেতে দিতাম। এমন করতে করতে তাদের ভাল বেশে ফেলেছিলাম কবে তা নিজেও জানিনা। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পর দিনে একবার দোকান খুলে ব্যবসা করছি। তাতে কিন্তু কোন সারমেয় দোকানের সামনে আসছে না। রাস্তায় লোক না থাকার দরুন ও চা বিস্কুট এবং হোটেলের দোকান বন্ধ। কিন্তু এখন পথের ওই সারমেয়দের পেট ভরানোই দায় হয়ে পড়েছে। সেদিকে নজর রেখে ঠিক চারটে বাজলেই দোকান বন্ধ করে দুই কর্মীকে নিয়ে বাড়ি থেকে রান্না করে নিয়ে আসা খাবার শহরের বিভিন্ন রাস্তা ঘুড়ে ঘুড়ে পথ সারমেয়দের মুখের সামনে আহার জগাচ্ছি। এতে বেশ আনন্দ লাগচ্ছে।

No comments