Breaking News

পূর্ব মেদিনীপুর জেলাশাসকের দপ্তরের সামনে পালিত হল সপ্তম কন্যাশ্রী দিবস

প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, নিউজ অনলাইন:
ছাত্রীদের পড়াশোনা আগ্রহ বাড়িয়ে তোলা ও তাদের নিরাপত্তার কথা ভেবে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে "কন্যাশ্রী" প্রকল্প চালু করা হয়। যা এখন  বিশ্বশীতে খ্যাতি অর্জন করে চলেছে।পশ্চিমবঙ্গে এই প্রকল্পের সুফল পেয়েছে 67 লক্ষেরও বেশি কন্যাশ্রী,পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এখনো পর্যন্ত কন্যাশ্রী প্রকল্পের সুবিধা পেয়েছে 3 লাখ 72 হাজার 813 জন।বিশ্বের দরবারে স্বীকৃত ও পুরস্কৃত এই প্রকল্প একাধারে যেমন স্কুলছুট কমিয়েছে অন্যদিকে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও কন্যা শীতে স্বাবলম্বী হওয়ার ক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে চলেছে।আজ কন্যাশ্রী দিবসে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পঁচিশটি ব্লকে পাঁচটি পৌরসভা এলাকায় সচেতনতামূলক ট্যাবলো যাত্রাসহ 285 জায়গায় হোডিং এর মাধ্যমে এই প্রকল্পের সাফল্য প্রদর্শন করা হয়। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার জেলাশাসক পার্থ ঘোষ সবুজ পতাকা দেখিয়ে ট্যাবলো যাত্রা শুরু করেন।
 পাশাপাশি এই জেলায় কন্যাশ্রী প্রকল্পের সেরা কাজের জন্য তিনটি স্কুল ময়না বিবেকানন্দ কন্যা বিদ্যাপীঠ অনন্তপুর বাণী নিকেতন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় ও বাজিতপুর সারদামণি বালিকা বিদ্যালয় সহ তিনটি কলেজকে জেলা স্তরে পুরস্কৃত করা হয়। এবং সমাজ কল্যাণ দপ্তর দ্বারা পরিচালিত তিনটি হোম এর আবাসিকদের জন্য স্যানিটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন ও ইনসিনারেটর দেয়া হয়।   এদিন জেলাশাসক পার্থ ঘোষ  বলেন প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও অনুষ্ঠান হলেও করোনা সংক্রমনের কথা মাথায় রেখে খুব অল্প সংখ্যক মানুষ নিয়ে অনুষ্ঠান করা হচ্ছে,এবং জেলায় যে সমস্ত কন্যাশ্রী রয়েছে তারা খুব ভালো কাজ করছেন তাদের অভিনন্দন জানান।

No comments