Breaking News

বাড়তি পণ না দেওয়ার কারণে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার স্বামী ও শশুর

প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, নিউজ অনলাইন:  
ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার রামনগর থানার সাতবাটিয়া গ্রামের সত্যরঞ্জন মালির বড় ছেলে মিলন মালির সঙ্গে দীঘা থানার পদিমা গ্রামের নারায়ন চন্দ্র জানার মেয়ে  চন্দনা মালির সঙ্গে । প্রায় ছয় বছর আগে নারায়ন বাবু তিন লক্ষ টাকা খরচ করে বিয়ে দিয়ে ছিলেন সাতবাটিয়া গ্রামের মিলন মালির সঙ্গে । কিন্তু বিয়ের পর থেকে তার শশুর বাড়ির লোকেরা আরো এক লক্ষ টাকা দাবি করে । কিন্তু নারায়ন বাবু যৌতুকের পর্যাপ্ত টাকা না দিতে পারায গত ২০ তারিখে চন্দনা মালিকে খুন করে বলে অভিযোগ মৃত মেয়ের  বাপের বাড়ির লোকের । সেই মর্মে রামনগর থানার পুলিশ মৃতা চন্দনার  স্বামী মিলন মালি ও শশুর সত্যরঞ্জন মালিকে গ্রেফতার করে এবং কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলা হলে আজ আদালত  তিন দিনের পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছে । বাকি মৃতের শ্বাশুড়ি ও দেওর এখন পলাতক । তাদের খোঁজে তাল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ  ।

No comments