Breaking News

তমলুক থানার পায়রাচালী গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরিযায়ী শ্রমীকদের রাখা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি

প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, নিউজ অনলাইন: তমলুক থানার পায়রাচালী গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরিযায়ী শ্রমীকদের রাখা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি। ঘটনাস্থলে তমলুক থানার পুলিশ। গতকাল একজন দিল্লি থেকে আরেকজন উত্তর প্রদেশের গাজিয়াবাদ থেকে বাড়িতে ফিরে এলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাখার কথা বললেও পায়রাচালী ফ্রী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী প্রতিবেশীরা বাধা দেন ওই বিদ্যালয়ে থাকার ক্ষেত্রে। বাধ্য হয়ে গতকাল বাড়ির পাশে ত্রিপল খাটিয়ে সেখানে সারারাত কাটিয়েছে দুজন।এর আগেও একই ঘটনা ঘটেছে এই বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে। ওই গ্রামেরই এক পরিযায়ী শ্রমিক এসেছিলো মাসখানেক আগে। তাকেও ওই বিদ্যালয়ে রাখতে দেওয়া হয়নি। আজ সকালে স্থানীয় পঞ্চায়েত কে বলে স্কুলের ঢুকানোর ব্যাপারে তৎপর হলে দুই পক্ষের মধ্যে বচসা বেঁধে যায়। তমলুক বিডিও গোবিন্দ দাস কে বিষয়টি জানানো হলে, ঘটনাস্থলেই তমলুক থানার পুলিশ হাজির হয়। ঘটনাস্থলে তমলুক থানার পুলিশ এসে সামাল দিলেও উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বাইরে বেশ কিছু সময় দাঁড়িয়ে থাকতে হয় দুই পরিযায়ী শ্রমিক কে। অবশেষে বেশি সংখ্যক পুলিশ বাহিনী হাজির হয়ে সামাল দিতে হয় পরিস্থিতির। অবশেষে পঞ্চায়েত সদস্য বিদ্যালয়ে চাবি খুলে দুই পরিযায়ী শ্রমিককে ভেতরে ঢোকার ব্যবস্থা করে দেয়।

No comments