Breaking News

জমি বিবাদের জেরে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী ও ছেলের বিরুদ্ধে


শিব শঙ্কর চ্যাটার্জি, নিউজ অনলাইন: 
জমি বিবাদের জেরে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ উঠলো স্বামী ও ছেলের বিরুদ্ধে। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য এলাকায়। শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে গঙ্গারামপুর থানার ফুলবাড়ী আউশা গ্রামে। ঘটনায় গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ অভিযুক্ত স্বামী ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে। এদিন ধৃতদের তোলা হয় গঙ্গারামপুর মহকুমা আদালতে।পুলিশি সূত্রে খবর মৃতা ওই মহিলার নাম তহমিনা বিবি (৪৫) এবং ধৃত স্বামী মমিনুল সরকার (৫০) ও ছেলে রানা সরকার (২২) ঘটনার পরে পুলিশ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। স্থানীয় সূত্রে খবর গঙ্গারামপুরে ফুলবাড়ী আউশা গ্রামের বাসিন্দা মমিনুল সরকার পেশায় একজন ব্যাবসায়ী। তার স্ত্রী তহমিনা বিবি। জানা গেছে মৃতা ওই গৃহবধূর নামে আছে  তিন একর জমি সেই জমি নিয়ে পরিবারে অশান্তি লেগেই থাকতো।এরপরে শুক্রবার সকালে বাড়ি থেকে ঢিল ছোড়া দুরুত্বে একটি ডোবা থেকে ওই মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার হয়। ঘটনাটি স্থানীয়দের নজরে আসতেই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। খবর দেওয়া হয় গঙ্গারামপুর থানায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে গঙ্গারামপুর থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার নিয়ে আসে গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। সেখানেই ওই মহিলাকে মৃত বলে ঘোষণা করে কর্তব্রত চিকিৎসকেরা। এই বিষয়ে মৃতা ওই মহিলার এক আত্মীয় জানিয়েছেন(বাইট পরিবারের লোকজন) ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে গঙ্গারামপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দ্বীপ কুমার দাস ও গঙ্গারামপুর থানার ic পূর্ণেন্দু কুমার কুন্ডু।  এরপরে পরে মৃতার বাপের বাড়ির লোকজন গঙ্গারামপুর থানায় স্বামী ও ছেলের নাম লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ।এরপরেই গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ অভিযুক্ত স্বামী ও ছেলেকে গ্রেপ্তার করে।এই বিষয়ে মৃতা ওই মহিলার এক আত্মীয় জানিয়েছেন(বাইট পরিবারের লোকজন) এদিন ধৃতদের গঙ্গারামপুর মহকুমা আদালত ও মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ।  এই বিষয়ে গঙ্গারামপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক দ্বীপ কুমার দাস জানিয়েছেন।

No comments