Breaking News

জোড়া খুন আমডাঙ্গায়, গুলিতে নিহত দুই ভাই, অভিযুক্ত পুলিশ কর্মী পলাতক

সৌভিক সরকার, নিউজ অনলাইন: 
শুক্রবার রাতে উত্তর চব্বিশ পরগনার আমডাঙায়  গুলিতে  খুন একই পরিবারের  দুই যুবক। অভিযোগ জমা পড়েছে এক পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে।  পুলিশ সূত্রে জানা গেছে অভিযুক্ত  বিধান নগরের এডিশনাল ডি সি র দেহরক্ষী সন্তোষ পাত্র নিজের সার্ভিস রিভল বার দিয়ে খুন করে পলাতক ।তার সন্ধানে পুলিশ খোঁজ চালাচ্ছে। 
 শুক্রবার রাতের জোড়াখুনের ঘটনায় নিহতেরা সম্পর্কে দুই ভাই। মৃতদের নাম সুমন্ত মন্ডল ও অরূপ মন্ডল।চাষবাসের সাথে যুক্ত মধ্যতিরিশের  যুবকেদের  বাবার মাছের ব্যবসা রয়েছে।এলাকাবাসীর প্রাথমিক অনুমান,  দুই ভাইকে  সম্পত্তিগত কারণে খুন হতে হয় পুলিশকর্মী সন্তোষ পাত্রের হাতে।  আমডাঙ্গা থানার পুলিশ  খুনের কার্য কারণ আরো সুনিশ্চত ভাবে জানতে  তদন্ত শুরু করছে। তবে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে,  তেঁতুলিয়ার ঠাকুরতলায় বসে নিহত যুবকদ্বয়  গল্প করার  সময়  অন্ধকার থেকে অভিযুক্ত পুলিশকর্মী  সন্তোষ পাত্র  সার্ভিস রিভলবার থেকে গুলি চালিয়ে সরে পড়ে। 

ঘটনায় প্রকাশ শুক্রবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ আমডাঙ্গার তেঁতুলিয়াতে এই গুলিচালনার  ঘটনা ঘটে ।জানা গেছে,  প্রথমে বাজির শব্দ ভাবলেও তেঁতুলিয়ার ঠাকুরতলায় এসে এলাকাবাসীরা  চাপ চাপ রক্তের পাশে নিথর দেহ দুটির শরীরে  গুলির দাগ দেখতে পায়।  এলাকাবাসীরাই আমডাঙ্গা থানায় খবর দেয়। রক্তাপ্লুত দুই যুবককে বারাসাত হাসপাতালে  নিয়ে আসা হলে  তাদের একজনকে সঙ্গে সঙ্গে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা।অপরজন অল্প সময়ের ব্যবধানে চিকিৎসা শুরুর আগেই  মারা যান।

বারাসাতের পুলিশ সুপার অভিজিৎ বন্দোপাধ্যায় ফোনে জানান,  জোড়াখুনের অভিযোগ জমা পড়েছে এক পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে। তার সন্ধানে তল্লাশি জারী আছে। পুলিশ সুত্রে খবর,অভিযোগ   বিধান নগরের এডিশনাল ডি সি র দেহরক্ষী কনষ্টেবল সন্তোষ পাত্র নিজের সার্ভিস রিভল বার দিয়ে খুন করে পলাতক ।

No comments