Breaking News

করোনা মোকাবিলায় ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের পুলিশ কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এলেন এক ব্যাবসায়ী


নিউজ অনলাইন: ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের অন্তর্ভুক্ত সমস্ত পুলিশ কর্মী ও আধিকারিকদের এই কর্মকান্ডে পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এলেন সোদপুরের ব্যবসায়ী কমল দাস। সানিটাইজার, সার্জিক্যাল মাস্ক,সার্জিক্যাল গ্লাপ্স, পিপি ই কিট, ব্লিচিং পাউডার, ফিনাইল পুলিশ কমিশনার মনোজ ভার্মার হাতে তুলে দেন।

https://youtu.be/k2pr0Dehhsc

কোভিড ১৯ ভাইরাস থেকে সাধারণ মানুষকে সুস্থ ও তাদের সুস্থ রাখতে  আইন শৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি  যেভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তা কূর্ণিশ করার মতন। তাদের কাজের পরিধি দীর্ঘায়িত করে বাইরে থেকে আসা সন্দেহ জনক মানুষ ও সংক্রামিত রোগিদের যথাযথ ব্যবস্থা করা।
সাধারণ মানুষ যেখানে আতংকিত হয়ে দূরত্ব বজায় রাখে, সেখান থেকে কর্তব্যের সঙ্গে  সঠিক যায়গায় পৌঁছে দেওয়টাই একমাত্র কাজ এই পুলিশ কর্মীদের।
কমল বাবু তার এই ইচ্ছের কথা জানান জয়েন্ট পুলিশ কমিশনার  ধ্রুবজ্যোতি দে কে।ওনার প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী বারাকপুর কমিশনারেটে অন্তর্ভুক্ত ১৭ টি থানা ও গোয়েন্দা বিভাগের আধিকারিক মিলিয়ে কর্মীর সংখ্যা ৫ হাজার। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা করে পুলিশ কমিশনার মনোজ ভার্মা, জয়েন্ট সি পি ধ্রুবজ্যোতি দে,অজয় ঠাকুর ও ডি সি জোন ২ আনন্দ রায়ের উপস্থিতিতে ২ টি গাড়িকরে জিনিস পৌছে দেওয়া হয়।
কমিশনার মনোজ ভার্মা জানান এই জিনিস গুলি আমাদের অত্যন্ত উপযোগী।ওনাকে ধন্যবাদ জানাই।

No comments