নিউজ অনলাইন : বৃহস্পতিবার ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তায় ভোট গণনা হবে। শহরের দশটি গণনাকেন্দ্রে চলছে তারই প্রস্তুতি। মঙ্গলবার লালবাজারের কর্তারা গিয়ে গণনাকেন্দ্র পরিদর্শন করেন। এদিকে, ভোটের পর থেকেই শহরের কয়েকটি জায়গায় ছোটখাটো সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশের হস্তক্ষেপে সেগুলি বড় চেহারা নেয়নি। ভোট গণনার শেষেও যাতে শহরে আইনশৃঙ্খলার অবনতি না হয়, তার জন্যও তৈরি থাকছে পুলিশ। এরই মধ্যে বুধবার উত্তর কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রের জোড়াসাঁকো বিধানসভা কেন্দ্রের সংস্কৃত কলেজিয়েট স্কুলে পুনর্নির্বাচন। লালবাজারের সূত্র জানিয়েছে, ওই বুথে কোনও গোলমালও হয়নি। বুথের ভোট আধিকারিক ভোট শুরু হওয়ার আগে ইভিএম থেকে ‘মক পোল’ মুছতে ভুলে গিয়েছিলেন। সেই কারণেই নির্বাচন কমিশন পুনর্নির্বাচনের নির্দেশ দিয়েছে। সেই কারণে এদিন সকাল থেকেই জোড়াসাঁকোয় ওই ভোটকেন্দ্রে তৈরি থাকছে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও পুলিশ। এলাকায় থাকবে পুলিশের টহলও। গণনার জন্য মোতায়েন থাকছে অতিরিক্ত চার হাজার পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে পুরো উত্তর কলকাতা লোকসভার ভোট গণনা হবে। দক্ষিণ কলকাতার আলিপুরে ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের সাতটি বিধানসভারই গণনা হবে। বিজয়গড় জ্যোতিষ রায় কলেজে হবে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের গণনা। এই কেন্দ্রগুলির নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছেন দু’জন করে ডেপুটি কমিশনার পদের আধিকারিক। এ ছাড়াও দক্ষিণ কলকাতা লোকসভার ক্ষেত্রে ডেভিড হেয়ার কলেজ, বালিগঞ্জ গভর্নমেন্ট স্কুল, শাখাওয়াত মেমোরিয়াল স্কুল, সেন্ট থমাস স্কুল, কসবার গীতাঞ্জলি স্টেডিয়াম, ঠাকুরপুকুরের দু’টি কেন্দ্রে হবে সাতটি বিধানসভা এলাকার গণনা। এই কেন্দ্রগুলির দায়িত্বে থাকবেন একজন করে ডিসি ও দু’জন করে এসি পদমর্যাদার অফিসার। যেখানে গণনা হবে, সেই জায়গার নিরাপত্তার দায়িত্বে মূলত থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এর বাইরের স্তরে থাকবে পুলিশ। কেউ কেন্দ্রের ভিতর মোবাইল বা সিগারেট-দেশলাই নিয়ে যাচ্ছেন কি না, সেদিকে থাকবে পুলিশের নজর।

তৃতীয় স্তরে পুলিশ থাকবে গণনাকেন্দ্রের বাইরে। রাস্তায় নিরাপত্তা ও ট্রাফিকের দায়িত্বে থাকবে তারা। গণনাকেন্দ্রের একশো মিটারের মধ্যে কোনও দলের সমর্থকদের ঢুকতে দেওয়া হবে না। লালবাজারের নির্দেশে গণনাকেন্দ্রের আশপাশের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হবে। কাছাকাছি কোনও গাড়িও পার্ক করতে দেওয়া হবে না। গণনার পর বিজয়মিছিলকে কেন্দ্র করে যাতে কোনও গোলমাল না হয়, তার জন্য কলকাতায় থাকছে কেন্দ্রীয় বাহিনীও। শহরে কোনও বড় ধরনের সংঘর্ষও যাতে না হয়, সেদিকেও নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

0 comments:

Post a Comment

বসিরহাটে এনআরসির আতঙ্কে মারা গেলেন এক চাষী

নিউজ অনলাইন: উত্তর ২৪ পরগণার বসিরহাট মহকুমার মাটিয়া থানার দক্ষিণ কৃপালপুর এর ঘটনা ।বছর ৩৬ এর মন্টু মন্ডল পেশায় চাষী ।বেশ কয়েকদিন ধরে...

 
Top