Breaking News

নিমতৌড়ী দিব্যাঙ্গ শিশুরা প্রার্থনা জানাল প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রনব মুখোপাধ্যায়ের দ্রুত আরোগ্য কামনায়

প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, নিউজ অনলাইন: 
দেশের সর্বোচ্চ পদে আসীন হলেও একবারও অবহেলিত মানুষ যারা, তাদের পাশে থাকতে ভুলে যাননি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। বাথরুমে পড়ে গিয়ে হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, শুধু তাই নয় চিকিৎসকেরা বলেছেন করোনা পজেটিভ। স্বাভাবিকভাবে এক কঠিন অবস্থায় বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, চিকিৎসকেরা আপ্রাণ চেষ্টা করছেন দ্রুত সুস্থ করে তোলার জন্য। তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করে নিমতৌড়ীর বিশেষ বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী শিশু কর্মীরা এবং দিব্যাঙ্গজনেরা আজ জন্মাষ্টমীর শুভদিনে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কাছে প্রার্থনা জানালো। বাংলার দিব্যাঙ্গজদের জন্য তার চেষ্টা সব সময় থাকত, প্রতিবন্ধীদের সরঞ্জাম দেওয়ার জন্য চিহ্নিতকরণ সহায়কযন্ত্রের ব্যবস্থাকরণ যোজনা কমিশন থেকে বরাদ্দ, প্রতিবন্ধীদের স্কুল গড়তে সাহায্য এগুলো তার মানবকি কর্তব্যের সাথে সাথে প্রশাসনিক দায়িত্ব কর্তব্য মনে করতেন।
নিমতৌড়ীতে প্রয়াত ডঃ সুশীল কুমার ধাড়া এবং শ্রীচতৈন্য মহাপাত্রের (কানুমামা)  অনুরোধে নিমতৌড়ীতে প্রনববাবু শিশুদের জন্য বিশেষ বিদ্যালয় গড়ে তোলার জন্য সরকারের সামাজিক ন্যায়, ক্ষমতায়ন মন্ত্রনালয়ের অধীনে এবং উনার চেষ্টায় ২০০৬ সালে গড়ে ওঠে ৫০ জন শ্রবণ প্রতিবন্ধীদের বিশেষ বিদ্যালয়। প্রতিবছর ছেলেমেয়েরা মাধ্যমকি পাশ করে হাতের কাজ শিখে স্ব-নির্ভর হওয়ার প্রক্রিয়া আজও অব্যাহত রয়েছে, শুধু তাই নয় একবার দিল্লীতে সরকারি অনুদান আটকে যায় তখন শুভন্দেু বাবু এবং প্রণব বাবুর চেষ্টায় আর্থিক অনুদান পায় বিদ্যালয়ের পরিচালন কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও একবার নিমতৌড়ী স্মৃতিসৌধে আগমনের সময় প্রতিবন্ধীদের হাতে তৈরি জুটে ছবি পেয়ে খুশি হয়েছিলেন প্রনববাবু একবার প্রতিষ্ঠানের আমন্ত্রণে আসতে না পারায়, তাঁর পুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়কে পাঠিয়ে ছিলেন। নিমতৌড়ী তমলুক উন্নয়ন সমিতি বিশেষ বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী এবং দিব্যাঙ্গজনের সঙ্গে তার মানবকি সম্পর্ক ছিল। তার অসুস্থতায় এখন করোনা ভাইরাসের সময়কালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দিব্যাঙ্গজনেরা ভগবানের কাছে দ্রুত আরোগ্য কামনা করে বিশেষ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে।
সংস্থার সম্পাদক যোগশে সামন্ত জানান আমাদের সঙ্গে প্রনববাবুর সাথে আমাদের পারবিারকি সম্পর্ক ছিল, দায়-বিপদ শুধু নয় ভালো-মন্দ খোঁজখবর নিতেন, সম্ভব হয়েছিল তার রাজনতৈকি গুরু প্রয়াত ডঃ সুশীল বাবুর জন্য। চিকিৎসকেরা আপ্রাণ চেষ্টা করছেন তাকে সুস্থ করে তোলার জন্য তিনি নিশ্চয়ই তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে আবার জনগণরে মধ্যে পূর্বের মতো কাজের ছন্দে ফিরবেন এই প্রার্থনা করছি আমরা সকলে।

No comments