Breaking News

বালুরঘাট শহরের দক্ষিন খাদিপুর পাড়ার শংকর স্মৃতি মন্দিরে দূর্গা পুজোর কাঠামো পুজো

শিব শঙ্কর চ্যাটার্জি, নিউজ অনলাইন:  করোনা আবহেই শুরু হল শারোদৎসবের সূচনা। বাঙালির সেরা পার্বণ মানেই দূর্গা পুজো। শহরের বড় বড় ক্লাবগুলো এখনও দোটানায়।আজ কাঠামো পুজোর মধ্য দিয়ে ঢাকে কাঠি পড়ল মায়ের আগমনের। বালুরঘাট শহরের দক্ষিন খাদিপুর পাড়ার শংকর স্মৃতি মন্দিরে দূর্গা পুজোর সূচনা হল আজ। রীতি মেনেই মন্দির চত্বরে হল কাঠামো পুজো। এ বারে  শংকর স্মৃতি মন্দিরের পুজো ৭৫ বর্ষে পদার্পণ করল।৭৫ বছর ধরে  শ্রী  কৃষ্ণের জন্মদিনের এই জন্মাষ্টমীতেই বালুরঘাট শহরের দক্ষিন খাদিমপুর পাড়ার শংকর স্মৃতি  মন্দিরে  জাক যমক  করে  দুর্গা কাঠামো পুজো চলে এলেও  করোনার ধাক্কায়  এবারই প্রথম কাঠামো পুজো  অনুষ্ঠিত হলেও উধাও জাক যমক অনুষ্ঠান।যদিও এবার তাদের  পুজোর ৭৫ বছর পুর্তি। ইচ্ছে ছিল সেই পুজো হবে অন্যান্য বছরের থেকে অনেক আলাদা ভাবে উদযাপন করার কিন্তু বিধি বাম।করোনার ধাক্কায় এখন সেই ইচ্ছেটা শুধু ইচ্ছেতেই থেকে গেল বাস্তবের মুখ আর দেখল না। 

আজ কাঠামো পুজোতে মানা হচ্ছে কোভিড প্রোটোকলও। তাই আজ ইচ্ছে থাকলেও মন্দিরে  ভক্ত সমাগম যাতে না হয় সেদিকে লক্ষ ছিল সবার । পাশাপাশি যে ক'জন মন্দিরে না থাকলেই নয় তাদের মধ্যে মেনে চলা হয়   পারস্পরিক দূরত্ব। এমন  পরিস্থিতি আগামী সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর চলবে বলেই ধরে নিয়ে এবার  দুগ্গা দুগ্গা করেই পুজো সারা হবে। অর্থাৎ কিনা নিয়মমাফিক পুজো হবে।হবে না কোন পুজোকে ঘিরে চারদিনের উৎসব। জানিয়েছেন পুজো কমিটির সম্পাদক ধীমান দে। 

অপরদিকে  পুরোহীত জয়ন্ত ভট্টচার্য্য জানান আগের যিনি পুজো করতেন তিনি গত হওয়ায় এবারই তিনি প্রথম পুজো করছেন। এবার পুজো হয়তো হবে তবে তার জৌলুস থাকবে না।কাঠামো পুজো করে মা দুর্গার কাছে এই মারন ভাইরাস করোনাকে দুর করে মা যেন সবার মংগল করবার জন্য এই কাঠামোতে এসে অধিষ্টান করেন সেটাই পুজোর মাধ্যমে তিনি মায়ের কাছে আহ্বান জানালেন বলে জয়ন্ত বাবু জানান।

এমনিতেই এবার পুজো মলো মাসের কারনে আশ্বীন মাস  থেকে পিছিয়ে কার্তিক মাসে হচ্ছে। করোনার ধাক্কায় অলিম্পিক, অস্কার থেকে এলোমেলো হয়ে গিয়েছে নববর্ষ, রথ এবং ঈদ। এখন প্রশ্ন দুর্গা পুজো নিয়ে। এ বার কী হবে পুজোয় ?  ভক্তদের মন খারাপ। করোনা ভাইরাসের হানায় দুর্গা সহায় আজ বোধহয় নিজেই অসহায়।

No comments