Breaking News

বিনা লাইসেন্সে গ্যাস মজুদ করার অভিযোগে ১৮ টি গ্যাস সিলিন্ডার সমেত দুই ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করল দক্ষিন দিনাজপুর জেলা পুলিশের এনফোর্সমেন্ট বিভাগ

শিব শঙ্কর চ্যাটার্জি, নিউজ অনলাইন:  বিনা লাইসেন্সে গ্যাস মজুদ করার দায়ে ১৮ টি গ্যাস সিলিন্ডার সমেত  দুই ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করলো দক্ষিন দিনাজপুর জেলা পুলিশের ইনফোর্সমেন্ট বিভাগের আধিকারিকরা।ধৃতরা হলেন কার্তিক মন্ডল ও সুশীল মন্ডল। প্রথমজনের বাড়ি হিলি থানার ত্রিমোহিনী এলাকায় দ্বীতিয়জনের বাড়ি হিলিতে বলে পুলিশ জানিয়েছে। 

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে আজ দুপুরে পুলিশের ইনফোর্সমেন্টের আধিকারিকরা হিলি থানার ত্রিমোহিনী এলাকার  একটি স্টেশনারি দোকানে হানা দিয়ে  অবৈধ্য ভাবে রাখা ৫ টি গ্যাস ভর্তি সিলিন্ডার আটক করে। বিনা কোন সরকারি কাগজপত্র ছাড়াই এই গ্যাস সিলিন্ডার গুলি সেখানে মজুত রাখা হয়েছিল। পুলিশের অনুমান স্টেশনারি দোকানের আড়ালে এখান থেকে অবৈধ্য ভাবে গ্যাসের সিলিন্ডার বেশি দামে বিক্রি করা হয়ে থাকে। পুলিশের আধিকারিকগন গ্যাস সিলিন্ডার আটক করার পাশাপাশি ওই স্টেশনারী দোকানদার কার্তিক মন্ডলকে গ্রেফতার করে। এর পাশাপাশি হিলি এলাকায় সুশীল মন্ডলের দোকানে হানা দিয়ে অবৈধ ভাবে মজুত রাখা ১৩ টি গ্যাস সিলিন্ডারের পাশাপাশি প্রায় ৪০ লিটার ডিজেলের ব্যারেল আটক করেছে।  কোন কিছুর বৈধ কাগজ পত্র দেখাতে না পারায় সুশীল মন্ডলকেও পুলিশের  ইনফোর্সমেন্টের অফিসাররা গ্রেফতার করে হিলি থানায় নিয়ে যায়। 

এদিকে জেলার বাসিন্দাদের অভিযোগ বেশ কিছু জায়গায় আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ভর্তি সিলিন্ডার মজুত করে বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে।যেখানে-সেখানে অবৈধ গ্যাস সিলিন্ডার মজুত করে ব্যবসা চলায় আতঙ্কিত এলাকাবাসী।  জেলায় বিভিন্ন জায়গায় বেশ কয়েকটি গ্যাস বিতরণ কেন্দ্র গড়ে উঠেছে। তা সত্ত্বেও অবৈধ ভাবে গ্যাস সিলিন্ডার মজুতদারিতে রাশ টানা যাচ্ছে না বলে তাদের  অভিযোগ।অপরদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গ্যাস ডিলার জানিয়েছেন মজুতদারদের কাছে গ্যাস কোথা থেকে আসছে জানা নেই। প্রশাসনের উচিৎ আইনভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া। কোনও  ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান একশো কেজির উপরে গ্যাস মজুত করলে এক্সপ্লোসিভ ও ফায়ার লাইসেন্স নেওয়া বাধ্যতামূলক। না-হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা।

জেলা পুলিশ সুপার দেবর্ষি দত্ত অবশ্য আজকের এই ডি ই বি অফিসারদের বেআইনি গ্যাস মজুতদারদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর বিষয়টি স্বীকার করে নিয়ে জানান ১৮টি গ্যাস সিলিন্ডার  ও ৪০ লিটার ডিজেলের ব্যারেল আটক করার পাশাপাশি অবৈধ ভাবে এসব সামগ্রী মজুত রাখার দায়ে  ওই দুই মজুতকারিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।তাদের বিরুদ্ধে হিলি থানায় নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পাশাপাশি পুলিশ তদন্ত জারি রেখেছে বলে পুলিশ সুপার জানান।

No comments