Breaking News

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হাজার পেরোলো

শিব শঙ্কর চ্যাটার্জি, নিউজ অনলাইন: ঘাতক কোভিডের হানায় দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এবার হাজারের ঘর পেড়লো।একদিন যে জেলা ছিল গ্রীন জোনে সেই জেলায় অতিমারি রোগে আক্রান্ত হয়ে হাজারের সংখ্যাটা পেড়োনোটা উদ্বেগের বিষয় বলে মনে করে জেলার সাধারন মানুষ। রবিবার জেলায় নতুন করে ২৮ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এদিনের মোট ২৮ জন নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১০ জন। এদিকে আক্রান্তদের জন্য নতুন কোভিড হসপিটাল খোলা নিয়ে কলকাতার উচ্চ আদালতে আজ মামলার শুনানীর দিকেই জেলা প্রশাসন তাকিয়ে রয়েছে।  

অপরদিকে গতকাল রাতে মালদা মেডিকেল কলেজের ভিআরডিএলে পাঠানো   রিপোর্ট এলে দেখা যায় জেলায় নতুন করে  ২৮ জনের রিপোর্ট পজিটিভ। বালুরঘাটের  ২ জন, তপনের খিরহাট্টা এলাকার ১ জন, কুমারগঞ্জ ব্লকের পূর্ব ভৌর গ্রামের ৩ জন, মামুদপুর ডাঙ্গারহাটের ২ জন ও সাফানগর এলাকার ১ জন আক্রান্ত হয়েছেন ।এদের লালা রস ২৫ জুলাই সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য মালদা মেডিকেল কলেজের ভিআরডিএলে পাঠানো হয়েছিল বলে জেলা স্বাস্থ্য দফতর সুত্রে জানা গেছে।এরা সবাই যেমন  উপসর্গহীন ছিল  বলে যেমন জানা গেছে।তেমনি এদের পুর্বের কোন  ভ্রমন বৃতান্ত নেই বলেও জেলা স্বাস্থ্য দফতর খোজ নিয়ে জেনেছে।

 অন্যদিকে আজকের  নতুন ২৮ জন আক্রান্তের মধ্যে ২ জনের মধ্যে  বালুরঘাট শহরের বঙ্গি ও চকভৃগু এলাকার একজন করে রয়েছেন। পাশাপাশি কুশুমণ্ডি ব্লকের মানিকোর, কুশুমণ্ডি ও রামচন্দ্রপুর এলাকার ১ জন করে। বংশীহারি ব্লকের বুনিয়াদপুর এলাকার একজন ও মোহাম্মদপুর দৌলতপুর এলাকার ৮ জন। হরিরামপুরের দানোগ্রামের ১ জন, গঙ্গারামপুর ব্লকের জয়পুর নীলডাঙার পাঁচ জন ও রতনপুর একজন সংক্রমিত হয়েছেন বলে জেলা স্বাস্থ্য দফতর সুত্রে জানতে পারা গেছে । তবে আক্রান্তের ঘর হাজারের সংখ্যা পেড়োলেও সুস্থতার হারও কিন্তু কম নয় জেলায়। এদিন ও ৮৫ জনের ছুটি হয়েছে। সবমিলিয়ে ৬৩৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।যদিও জেলা স্বাস্থ্য দফতরের তরফে এই নিয়ে কোন মন্তব্য করা হয়নি।আক্রান্তদের সেফ হোম ও কোভিড হাসপাতালে নিয়ে আসার কাজ চলছে বলে জানা গেছে।

No comments