Breaking News

ফের শাসক দলের নেতার বিরুদ্ধে আমফান দুর্নীতির অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠল উত্তর ২৪ পরগনার ছোট জাগুলিয়া

সৌভিক সরকার, নিউজ অনলাইন: আমফানের ত্রাণকে কেন্দ্র করে শাসক দলের নেতাদের  দুর্নীতি ঘিরে অগ্নিগর্ভ উত্তর চব্বিশ পরগনার ছোটো জাগুলিয়ার তৃনমূলের পঞ্চায়েত সদস্যর স্বামীকে ঘিরে বিক্ষোভ। সোমবার সকালে দত্তপুকুর থানায় ছোট জাগুলিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বড়োপোল এলাকা উত্তাল হয়ে ওঠে  গ্রামবাসীদের প্রতিবাদ বিক্ষোভে । উঠেছে তৃণমূলের ক্ষমতাসীনদের ত্রাণ দেওয়ায় স্বজনপোষণ ও দুর্নীতির। অভিযোগ প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থদের  মধ্যে অধিকাংশ মানুষ ত্রাণ পাচ্ছেন না।অভিযোগ  যে মুষ্টিমেয় মানুষ ত্রাণ পাচ্ছেন তাঁদের কাটমানি দিতে হচ্ছে। বড়পোলের ঘটনায় গাড়ি ভাঙচুর থেকে ছোটোজাগুলিয়া গ্রাম  পঞ্চায়েত সদস্য তপতী মজুমদারের স্বামী তৃণমূল নেতা শ্রীবাস মজুমদারকে  ঘিরে ক্ষোভ  বিক্ষোভ।অভিযোগ প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থদের বঞ্চিত করে নেতা নেত্রীর পরিবারের আত্মীয়স্বজনকে ক্ষতিপূরণ পাইয়ে দেওয়ার। দত্তপুকুর থানার  পুলিশ এসে ত্রাণ দুর্নীতিতে  অভিযুক্তকে উদ্ধার করে। 


সিপিএম বিধায়ক  তন্ময় ভট্টাচার্য এর আগেই অভিযোগ এনেছিলেন সুপার সাইক্লোনে  ক্ষতিপূরণ ও ত্রাণ ঘিরে রাজ্যের শাসক দল  তৃণমূল কেন্দ্রে ক্ষমতায় থাকা বিজেপির সাথে অশুভ আঁতাত করে সীমাহীন  দুর্নীতি করছেন। তিনি জানান বামপন্থী আন্দোলনের অভিমুখ থাকবে গণতান্ত্রিক ভাবে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থ চিহ্নিত করে তাঁদের প্রাপ্য আদায়ের। কর্মসূচি থাকবে গণতান্ত্রিক  বিক্ষোভের । কিন্তু  ভাঙচুরের রাজনীতি তাঁরা সমর্থন  করেন না। কিন্তু সোমবার দত্তপুকুরের ছোটো জাগুলিয়ার ঘটনা  প্রমান করল মানুষ অতলস্পর্শী দুর্নীতির প্রতিবাদে নেমে তাঁদের বিক্ষোভে এতটাই ফেটে পড়ছেন যে সেখানে রাশ থাকছে না। ভাঙচুর থেকে সর্বাত্মক বিক্ষোভের রাস্তায় হাটছে মানুষ। 
 
সিপিএম থেকে  প্রমান দাখিল করে অভিযোগ করা হয়েছে উত্তর চব্বিশ পরগনায়  তৃণমূলের নেতাদের  এক এক পরিবার থেকে দশ এগারোজন ও ক্ষতিপূরণ পাওয়ার নজির আছে। স্বরুপনগরে তৃণমূল নেতার পরিবারে এগারোজনের কুড়িহাজার টাকা করে পাওয়ার কুকর্মের  দৃষ্টান্ত আছে, প্রমান সম্বলিত অভিযোগ সিপিএম নেতা তন্ময় ভট্টাচার্যের। একই দৃষ্টান্তের অনুরণন মিলেছে দত্তপুকুরের বড়পোলের প্রতিবাদী অভিযোগে।ছোটোজাগুলিয়ার  গ্রামপঞ্চায়েত সমস্যার পরিবারের পাঁচজনের কুড়িহাজার টাকা প্রাপ্তির অভিযোগ উঠছে।অভিযোগ উঠেছে ক্ষতিগ্রস্থদের  কাটমানি নেওয়ার। আর একে ঘিরেই সোমবার  উত্তাল হয়ে থাকল ছোটোজাগুলিয়ার বড়পোল গ্রাম ।

No comments