Breaking News

দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় একদিনে ৮৫ জন করোনায় আক্রান্ত

শিব শঙ্কর চ্যাটার্জি, নিউজ অনলাইন: এক দিনে দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় ৮৫ জন করোনা সক্রমনের হদিস মেলায় নড়ে চড়ে বসল জেলা প্রশাসন। আজ দুপুরে বালুরঘাট সার্কিট হাউসে অড়িঘড়ি ডাকা এক জরুরি প্রশাসনিক বৈঠকে বসে জেলা প্রশাসনের   কর্তা ব্যাক্তিদের সাথে জেলার স্বাস্থ্য দফতরের বড় ছোট আধিকারিকদের পাশাপাশি জেলার সমস্ত বি এম এইচ ও রাও এই বৈঠকে উপস্থিত ছিল। বৈঠকে জেলার সর্বশেষ করোনা সক্রান্ত বিষয় নিয়ে উচ্চ পর্যায়ে আলোচনা করে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হয় বলে জানা গেছে।  পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে বলে জেলা পর্যায়ের এই আলোচনায় বেড়িয়ে আসা নির্যাসে জেলা শাসক  নিখিল নির্মল সন্তুষ্টি প্রকাশ করে জানিয়েছেন অযথা এই নিয়ে উদ্ববিগ্ন হওয়ার মত এখন ও কিছু নেই। জেলা স্বাস্থ্য দফতর যথেষ্ট দক্ষতার সাথে এই পরিস্থিতিতে কাজ করে চলেছে।   তিনি  আরও বলেন লকডাউন এর সোসাল বিধি মেনে চলা একান্ত জরুরি,  সেটা যাতে সবাই মেনে চলেন সেটা সবার দেখা উচিত।  

এদিকে  আজকের বৈঠকে যে সব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেগুলি হলো জেলায় বর্তমানে  ৫ টি সেফ হাউস থাকলেও খুব শিঘ্রি বালুরঘাট যুব হোস্টেল  কে এই আওতায় আনা হচ্ছে।  সেখানে ৮০ টি শয্যার ব্যবস্থ্যা করা হবে।  পি ডাবলিউ ডি কে সেখানে বাকি কাজ দ্রুত শেষ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।  পাশাপাশি এখন থেকে গভ; এর হেলথ গাইড অনুযায়ী যারা অল্প সক্রমিত ও নিজেদের বাড়িতেই নিভৃতবাসে রয়েছেন। তাদেরকে প্রতিদিন বাড়ি বাড়ি গিয়ে ডাক্তার চেক আপ করবে পাশাপাশি তাদের জেলা কোভিড কন্ট্রোল রুম থেকে প্রতিদিন ফোন করে তাদের শারিরিক পরিস্থিতির খব নেওয়ার কাজ শুরু করা হবে। এরপাশাপাশি কন্টেইন্মেন্ট জোন বাড়ানো বা কমানোর ব্যাপারটিও  সক্রমনের হদিসের তালিকা মিলিয়ে পর্যালোচনা করে ঠিক করা হবে।  যদিও জেলায় ১৯ জুলাই অবদ্ধি লকডাউন চলছে কিন্তু পরবর্তি পরিস্থিতি জেলা প্রশাসন খতিয়ে দেখে পরে ব্যবস্থ্যা নেওয়ার হলে নিতে পারে বলে জানা গেছে।  এই মুহুর্তে জেলায় কনটেন্টমেন্ট জোনের সংখ্যা ৩০ বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।

No comments