Breaking News

এত পরিযায়ী মানুষ ফিরছে, আপনারা দায়িত্ব জ্ঞানহীনের কাজ করছেন : মহুয়া মৈত্র

নিউজ অনলাইন: ভিন রাজ্য থেকে পরিযায়ী মানুষরা বাড়িতে ফিরলেও এলাকার মানুষ খবর না দেওয়ার জন্য ফেসবুক লাইভে উষ্মা করলেন সাংসদ মহুয়া মৈত্র। শুক্রবার রাতে তিনি বলেন, কাল হরিয়ানা থেকে তিনজন কোয়াক ডাক্তার এলো, বাড়িতে থাকলো। ডাক্তার বলে আপনারা কেউ খবর দিলেন না। আজকে কেউ বাড়িতে আছে আপনারা খবর দেবেন না। এটা কি ভাবে হয়? আপনারা যদি হেল্প না করেন আমরা কি বাড়িতে বাড়িতে পুলিশ পোস্টিং করতে পারি?

  যদি হয় তাহলে পুরো গ্রাম  এখন আপনাকে কনটেইনমেন্ট জোন ডিক্লেয়ার করতে হচ্ছে। এটা ভালো হচ্ছে! শুধু এটা সরকারের, আমার বা বিডিও সাহেবের রেসপন্সিবিলিটি নয়। আপনারা আপনাদের নিজের দায়িত্ব বুঝুন। প্রসঙ্গত জেলায় সবথেকে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা তেহট্ট-১ ব্লকে বেশি। এখনও পর্যন্ত পজিটিভের সংখ্যা ৩২। জেলাতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৬৯। এদিন সন্ধ্যার পর তেহট্ট-১ ব্লকে দুজন পরিযায়ী শ্রমিকের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এদের একজনের বাড়ি তেহট্ট- ১ ব্লকের পাথরঘাটা ২ পঞ্চায়েতে। সে স্কুলের কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। আরেকজনের বাড়ি বেতাই ২ পঞ্চায়েত এলাকায়৷ সে ভিন রাজ্য থেকে ফেরার পরও বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে ছিলেন। দ্বিতীয় ব্যক্তির বাড়িতে থাকা নিয়ে মহুয়া মৈত্র বলেন, তেহট্ট ১ ব্লক এ রোজ এরকম হচ্ছে। পাড়ার লোক, পঞ্চায়েতের যে ছিল সে জানত। তারা বলেনি ফলে পুরো কনটেইনমেন্ট জোন করতে হচ্ছে। আমি বারবার বলছি পাড়ার লোকজনকে সতর্ক থাকতে হবে। প্রতিদিন তেহট্ট-১ ব্লকে মানুষ আসছে। আমি সরকারি ভাবে যা স্টেপ নেওয়ার করছি। তেহট-১ ব্লকের গ্রামবাসীদের বলছি এটা কিন্তু আপনারা ভালো কাজ করছেন না। পাড়ার লোক জানা সত্ত্বেও খবর দেয়নি। প্লিজ আপনারা সতর্ক হন- আমি বার বার বলা সত্ত্বেও মানুষ কেন এরকম করছে? একা আমি বা পুলিশ আধিকারিক সব করতে পারি না- এটা শুধু আমাদের দায়িত্ব নয়। তিনি আরও বলেন, তেহট্ট-১ ব্লকের মানুষকে সতর্ক করছি। তেহট্ট ১ ব্লকে এত পরিযায়ী মানুষ ফিরছে আর আপনারা দায়িত্ব জ্ঞানহীনের কাজ করছেন। এটা প্লিজ যাতে না হয় তার জন্য আমি অনুরোধ করছি।   

No comments