Breaking News

প্রকৃতির রোষে মাথায় হাত বোরো চাষীদের

কল্যাণ দত্ত, নিউজ অনলাইন: 
প্রকৃতি যেন বিরুপ চাষিদের উপর। তাই লাগাতার চাষিদের পাকা ধানে মই দিচ্ছে সে। এর ফলে লাভ তো দুরে থাক খরচই উঠবে না চাষের। ঘুরিয়ে বিঘাপ্রতি দু চার হাজার টাকা বাড়তি অর্থ খরচ করে ধান বাড়িতে আনতে হবে। এমনই দাবী পূর্ব বর্ধমানের খন্ডঘোষ ব্লক এবং রায়না ব্লক  চাষিদের। জানা যায়, আকাশ জুড়ে বেশ কিছুদিন খামখেয়ালী আবহাওয়ার ফলে অনবরত ঝড় বৃষ্টি হচ্ছে এলাকায়। তার ফলে পাকা ধান জমিতে জল জমে আছে সর্বত্র। এদিকে কাটার সময় পেরিয়ে যাওয়ায় জমিতেই খসে পরছে পাকা ধান। তাই বাধ্য হয়ে জলে ভেজা ধান কেটে মাথায় করে পাড়ে তুলে পোয়াল মারা মেশিনে ঝাড়াই করছেন। গোটা এলাকায় হেক্টরের পর হেক্টর জমির ধান জলে ডুবে নষ্ট হচ্ছে। আর এর ফলে মাথায় হাত পূর্ব বর্ধমান এলাকার সব চাষিদের। 
একদিকে করোনার জেরে মানু‌ষের উপার্জন বন্ধ। টান পরেছে মধ্যবিত্ত ও চাষি পরিবার গুলির ভাতের হাঁড়িতে। অন্যদিকে চরম লেবার সংকট। করোনার ভয়ে কাজে আসতে চাইছে না কেউ। তাই চড়া দামে শ্রমিক নিয়ে চাষের কাজ করাতে হচ্ছে চাষিদের। জমিতেই ধান কাটা, জল ছেঁকে ভেজা ধান তোলা বা ভিজে ধান মেশিনে ঝাড়াই করার জন্য খরচ বেড়ে তিন চার গুন হয়ে যাচ্ছে। এমন অবস্থায় পাশে থাকুক সরকার এমনটাই চাইছেন পূর্ব বর্ধমানের  সমস্ত ব্লকের চাষিরা। 

No comments

খন্ডঘোষ ব্লকের দক্ষিন দামোদর ইঁট ভাটার শ্রমিকদের, দক্ষিণ দামোদর ব্রিক ম্যানুফ্যাকচারার অ্যাসোসিয়েশন সহযোগিতায় বাড়ি ফেরানো হল শ্রমিকদের

কল্যাণ দত্ত, নিউজ অনলাইন: পূর্ব বর্ধমান জেলার খন্ডঘোষ ব্লকের দক্ষিন দামোদর ইঁট ভাটার শ্রমিক দের, দক্ষিণ দামোদর ব্রিক ম্যানুফ্যাচ...