Breaking News

বারাসাতে ডেপুটেশন জমা দিতে গিয়ে গ্রেপ্তার বামপন্থী নেতা ও কর্মীরা

সৌভিক সরকার, নিউজ অনলাইন: ভিনরাজ্যে কর্মসূত্রে যাওয়া এ রাজ্যের শ্রমিক দের ফিরিয়ে আনা ও সহায়তা দানের ডেপুটেশন জমা দিতে গিয়ে গ্রেপ্তার বামপন্থী নেতা ও কর্মীরা। করোনা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ জেলাশাসকের অপসারণ চাইলেন সিপিএম নেত্রী গার্গী চট্টোপাধ্যায়। 

 ভিন রাজ্যে কাজে গিয়ে আটকে পড়া শ্রমিকদের  ঘরে ফিরিয়ে আনার দাবীকে  সামনে রেখে একগুচ্ছ দাবী নিয়ে বামপন্থী শ্রমিক সংগঠন সিটুর বিক্ষোভ বারাসাতে  উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা শাসকের কার্যালয় সংলগ্ন চত্বরে।বাম শ্রমিক সংগঠন সিটু বৃহস্পতিবার  সিপিএম নেত্রী গার্গী চ্যাটার্জীর নেতৃত্বে বারাসাতে  জেলা শাসকের দপ্তরে  স্মারকলিপি (ডেপুটেশন ) পেশ করতে যায়।পুলিশ এদিন আগাম তৎপর হয়ে জেলা শাসকের দপ্তরের বাইরে ত্রিস্তর বলয় তৈরী করে।  স্মারকলিপি পেশ করার আগেই  বারাসাত থানার আই সি দীপঙ্কর ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে  পুলিশ বাহিনী  বিক্ষোভকারীদের গ্রেপ্তার করে।

 বামেদের তরফ থেকে দাবী করা হয়েছে, মোট ৩২ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন তাঁরা দশহাজার  অতিথি শ্রমিক (পরিযায়ী শ্রমিক )দের তালিকা তৈরী করেছেন। এঁদের ঘরে ফিরিয়ে আনা ও কর্মহীন -নিরন্ন শ্রমিকদের তিনমাস আর্থিক সহায়তা দানের দাবী নিয়ে তাঁরা জেলাশাসকের কাছে স্মারকলিপি পেশ করতে চেয়েছিলেন।  সিপিএম নেত্রী গার্গী চ্যাটার্জী জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতি তে রাজ্য ব্যর্থ। উত্তর চব্বিশ পরগনার জেলাশাসক চৈতালী চক্রবর্তীকে "অমানবিক ও দলদাস জেলাশাসক " আখ্যা দিয়ে গার্গী চ্যাটার্জীর অভিযোগ  ব্যর্থতা ঢাকতে প্রতিবাদী কঠস্বর রোধের চেষ্টা করা হচ্ছে। আর তাই বামপন্থীদের  গ্রেপ্তার করা হচ্ছে বলে মন্তব্য তাঁর । জেলাশাসকের অপসারণের দাবী ও তোলেন তিনি।  অসহায়  শ্রমিকদের জন্য বৃহত্তর আন্দোলনের পরবর্তী  বামপন্থী  কর্মসূচি  দ্রুত গৃহীত হবে বলে জানিয়েছেন গার্গী চ্যাটার্জী।

No comments

খন্ডঘোষ ব্লকের দক্ষিন দামোদর ইঁট ভাটার শ্রমিকদের, দক্ষিণ দামোদর ব্রিক ম্যানুফ্যাকচারার অ্যাসোসিয়েশন সহযোগিতায় বাড়ি ফেরানো হল শ্রমিকদের

কল্যাণ দত্ত, নিউজ অনলাইন: পূর্ব বর্ধমান জেলার খন্ডঘোষ ব্লকের দক্ষিন দামোদর ইঁট ভাটার শ্রমিক দের, দক্ষিণ দামোদর ব্রিক ম্যানুফ্যাচ...