Breaking News

বিএসএফ এর তৎপরতায় বাংলাদেশে পাচারের সময় প্রচুর ট্যাবলেট, ইনজেকশন উদ্ধার, গ্রেপ্তার এক

সৌভিক সরকার, নিউজ অনলাইন: 
বসিরহাট মহকুমার বসিরহাট থানার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের ঘোজাডাঙ্গা। একটি স্কুটির মধ্যে করে একজন পাচারকারী কয়েক হাজার মাইকোফেনোলেট সোডিয়াম  ট্যাবলেট 'সহ মারণ রোগের ইনজেকশন পাচারের উদ্দেশ্যে ঘোজাডাঙা সীমান্তের চেকপোষ্টে আসলে  সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ১৫৩ নম্বর ব্যাটালিয়নের সীমান্তরক্ষী বাহিনী ওই ব্যক্তির  কে  দাঁড়াতে বললে  সে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে  ওই চেকপোষ্টে  ডিউটি রত  বিএসএফ জওয়ান  গাড়িটিকে তাড়িয়ে ধরে সিট কভারের ভেতর থেকে কয়েক হাজার ট্যাবলেট ও ইনজেকশন উদ্ধার হয়। যার বাজার মূল্য ৬ লক্ষ টাকা। ওই পাচারকারী কোন নথিপত্র দেখাতে পারিনি, গাড়িটিকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে, পাচারকারীকে গ্রেফতার করে বসিরহাট থানার হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।  এই নিয়ে গত সাত দিনে  বিএসএফ তিনবার পাচার রুখল। সব মিলিয়ে প্রায় ১৮ লক্ষ টাকার ট্যাবলেট, ইঞ্জেকশন, জুতো, বিড়ি বাংলাদেশে পাচারের আগে উদ্ধার হয় গত সাতদিনে পাচার রুখে দেওয়ায় বিএসএফ এর বড়ো সাফল্যের বলে মনে করছে। বিএসএফের ডিজি প্রদীপ কুমার তিনি বলেন আমাদের জওয়ানরা জিরো পয়েন্টে কড়া নজরদারি চালাচ্ছে, একে করোনা ভাইরাসের জন্য নজরদারি চালাচ্ছে। যেন কোন ব্যক্তি অবৈধভাবেওপার থেকে এপারে আসতে না পারে, বা এপার থেকে ওপারে না যেতে পারে আমরা সেই দিকটা ২৪ ঘন্টা নজর রেখেছি । বাজেয়াপ্ত করা ট্যাবলেট ও ইঞ্জেকশন গুলি ঘোজাডাঙ্গা শুল্ক দপ্তরে হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। সূত্রে জানা যায় এগুলি বাংলাদেশ তিন গুণ দামে বিক্রি হয় । ধৃত পাচারকারীকে আজ সোমবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হয়।

No comments