Breaking News

আমফান ঘূর্ণিঝড়ে মৃতের পরিবারের হাতে ২.৫ লক্ষ টাকার ২২টি চেক বিলি করা হল বসিরহাট ও বারাসাতে

সৌভিক সরকার, নিউজ অনলাইন: সুপার সাইক্লোন আমফানে  কেউ হারিয়েছেন মা, কেউ হারিয়েছেন স্বামী, কেউ ভাতৃহারা। কারো বাড়ি দেগঙ্গা, কারো চাঁদপুর, কেউ বা স্বরূপনগরের বাসিন্দা।  উত্তর চব্বিশ পরগনার বিভিন্ন এলাকায় ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড় আমফানের দাপটে প্রাণ হারিয়েছেন বহু মানুষ। সরকারি মতে মৃতের সংখ্যা বাইশ।মুখ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছিলেন মৃতদের পরিবারকে আড়াই লক্ষ টাকা করে দেওয়া হবে। আগেই   বাইশ জন মৃতদের নাম নথিভুক্ত করা হয়েছিল  মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে। বিভীষিকার রাতের সাতদিন পূর্ণ হওয়ার ঠিক আগে বুধবার বিকেলে বারাসাত ও বসিরহাটে মৃত বাইশজনের শোকসন্তপ্ত  পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হল আড়াই লক্ষ টাকা করে চেক। বারাসাত জেলাশাসকের দপ্তরে মৃতের পরিবারকে আড়াইলাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণস্বরূপ অর্থসাহায্য  তুলে দেওয়া হয়। উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলাপরিষদের সভাধিপতি বীনা মন্ডল স্বজন হারানো দশটি পরিবারের হাতে তুলে দেন চেক। বসিরহাটে বারোটি স্বজনহারানো পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় চেক। ঝড়ে বিধ্বস্ত পরিবার গুলির সদস্যরা জানেন তাঁদের বাড়ির মানুষ আর ফিরবেন না কিন্তু বিপদের মুহূর্তে আর্থিক ক্ষতিপূরণ তাঁদের অনেকটাই কাজে লাগবে। তাই  মাত্র সাতদিনের মধ্যে  অর্থসহায়তা পেয়ে তাঁরা রাজ্যসরকার ও মুখ্যমন্ত্রীকে সাধুবাদ জানাতে ভোলেন নি।।

No comments