Breaking News

লকডাউন মেনে চলার আবেদন নিয়ে পথে নামল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন


শিব শঙ্কর চ্যাটার্জী, নিউজ অনলাইন, বালুরঘাট : লকডাউন মেনে চলার জন্য এবার পথে নামলো প্রশাসন। গত ২৪ দিন ধরে টানা লকডাউন চলায় দক্ষিন দিনাজপুর জেলায় বেশ কিছু ব্যবসায়ী সেই লকডাউন বিধি অমান্য করে  চুপিসারে তাদের দোকান পসার খুলে ব্যবস্যা শুরু করেছিল। আর সুযোগ বুঝে সেই সুবিধে নিতে সেই সব দোকান গুলিতে লকডাউন বিধি উড়িয়ে ভীড় জমাচ্ছিল স্থানিওরাা  এই চিত্র জেলার সর্বত্র একরকম না হলে ও জেলার খোদ জেলা সদর বালুরঘাটে এই চিত্র হামেশাই দেখতে পাওয়া যাচ্ছিল। করোনা কে রুখতে যে সোসাল ডিসটান্সের আচরন বিধি মেনে চলার জন্যই যে এই লকডাউন তা যেন এক কথায় হাস্যকর হয়ে পড়ছিল। এই নিয়ে স্থানিও বাসিন্দাদের মধ্যেও কঝোভ দেখা দিচ্ছিল। 

সেদিকে লক্ষ রেখেই আজ বালুরঘাট  শহরে ব্যবসায়ীদের লকডাউন বিধি মেনে চলার ব্যাপারে পথে নামল প্রশাসন। বালুরঘাট মহুকুমা শাসক বিশ্বরঞ্জন মুখার্জীর নেতৃত্বে প্রশাসনের  একটি টিম বালুরঘাট শহরের বিভিন্ন বাজার এলাকায় হানা দেয়। তারা বেশ কিছু  দোকানকে বন্ধ করে দেবার পাশাপাশি সেই সব দোকানদারদের ফের লকডাউন মেনে চলার ব্যাপারে কড়া হুশিয়ারি করে জানান না হলে  পরবর্তিতে তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে। 

তারা পরে বালুরঘাটের দুধ বাজারেও যান,  সেখানে সোসাল ডিসটান্স না মেনে গা ঘেষাঘেষি করে দুধ বিক্রি করছেন দুধ বিক্রেতারা। সেদেখেই বালুরঘাট মহুকুমা শাসক তাদের এভাবে দুধ বিক্রি করতে নিষেধ করে তাদের ফাকা ফাকা করে বসে দুধ বিক্রি করবার কথা বলেন। নিজেদের প্রয়োজনেই তাদের আরো ছড়িয়ে ছিটিয়ে  বসে দুধ বিক্রি করার কথা বলেন।

পরিদর্শন শেষে বালুরঘাট মহুকুমা শাসক বিশ্বরঞ্জন মুখার্জী জানান প্রশাসনের তরফে প্রথম থেকেই  লকডাউন চলা কালিন সোসাল ডিসটান্স মেন্টেন করে যে চলা বার্তা দেওয়া হয়েছিল সেদিকে লক্ষ রেখেই আজ সেই একই বার্তা নিয়ে শহরের লকডাউন অমান্যকারীদের কাছে সেই বার্তাটাই তুলে ধরার জন্যই আজকে তাদের উদ্দেশ্য। তিনি আরও বলেন ৯৫ শতাংশ লকডাউন মানছেন ৫ শতাংশ মানুষ হয়তো ভুল করে বা এক্সটেনসনের বার্তা না জানার কারনে নিত্য প্রয়োজনীয়  ব্যবসায়িক প্রতিষ্টান নয় জেনেও খুলে রেখেছেন।  তাদের বুঝিয়ে শুনিয়ে  লকডাউন মেনে বন্ধ রাখার কথাই তাদের বলা হয়েছে বলে তিনি জানান।

No comments